,
সংবাদ শিরোনাম :

সাইবার নিরাপত্তায় জনসচেতনতা জরুরি

আলোরকন্ঠ রিপোর্টঃ সাইবার অপরাধ বর্তমান বিশ্বে মারাত্মক হুমকি হিসেবে আবির্ভূত হয়েছে। প্রত্যেক মানুষ সাইবার ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে। সাইবার হামলা থেকে মুক্ত রাখতে জনসচেতনতা খুবই জরুরি বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

বুধবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে আয়োজিত ‘সাইবার এফেক্ট ইমপেক্ট অব টেকনোলজি ইন দ্য সোসাইটি’ শীর্ষক এক আলোচনা সভায় আলোচকরা এসব কথা বলেন।

বক্তারা বলেন, আমরা দৈনন্দিন জীবনে ডিভাইসের উপর নির্ভরশীল। বাসার কাজ থেকে শুরু করে প্রতিটি কাজে ইন্টারনেটের ব্যবহার রয়েছে। বিশ্বব্যাপী ইন্টারনেট সংযুক্ত প্রযুক্তিপণ্যের ব্যবহার বৃদ্ধির সঙ্গে সাইবার নিরাপত্তা ঝুঁকি বাড়ছে। সাইবার আক্রমণের হাত থেকে বিভিন্ন নেটওয়ার্ক সিস্টেমকে সুরক্ষা প্রদান দিন দিন ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে উঠছে। তথ্যপ্রযুক্তির সঠিক ও সার্বিক সুফল নিশ্চিত করতে সাইবার নিরাপত্তা বর্তমান সময়ের সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ। এজন্য জনসচেতনতার কোনো বিকল্প নেই।

আলোচনা সভায় মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন আইসকা ঢাকা চ্যাপ্টারের সভাপতি এ কে এম নজরুল হায়দার। তিনি বলেন, গত দিনের সমস্যা সমাধান করে আগামী দিনের সাইবার ক্রাইম প্রতিরোধ করা যাবে না। সাইবার ওয়ার্ল্ডে অনেক সমস্যা রিপিট হয় না। কারণ নতুন নতুন ধরনের সমস্যা আসতে থাকে। সাইবার ক্রাইমে বিষয়ে ফিউচার দিয়ে ফিউচার সমস্যাকে মোকাবেলা করতে হয়। সাইবার ওয়ার্ল্ডের পরিধি খুবই বড়। সাইবার নিরাপত্তায় দক্ষ জনবলের পাশাপাশি জনসচেতনতা খুবই জরুরি।

বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল কর্তৃপক্ষের উপ-প্রকল্প পরিচালক আবদুল্লাহ আল মাহমুদের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন সিসিএ নিয়ন্ত্রক আবুল মানসুর মোহম্মাদ সারফ উদ্দিন, ডিআরইউ সভাপতি সাখাওয়াত হোসেন বাদশা, সাধারণ সম্পাদক মুরসালিন নোমানী ও ক্র্যাব সভাপতি আবু সালেহ আকন প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com