,
সংবাদ শিরোনাম :
» « ইতালির ত্রেভিজোতে উৎসব মুখোর পরিবেশে বর্ষবরণ পালিত» « স্বাস্থ্য সেবার উন্নয়নে সমাজকল্যাণ মন্ত্রনালয় কাজ করে যাচ্ছে -সমাজকল্যাণ মন্ত্রনালয়ের মন্ত্রী রাশেদ খান মেমন» « বেলজিয়ামে বর্ষ বরণ ও বৈশাখী মেলা» « প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা লন্ডন পৌঁছেছেন» « ঠাকুরগাঁওয়ে সড়ক অবরোধ/অবশেষে প্রত্যাহার» « ঠাকুরগাঁওয়ে হয়ে গেল দুই বাংলার মিলন মেলা» « ইতালীর ভেনিসে জাকজমক বাংলা নববর্ষ উদযাপিত» « বর্ষবরণে ঠাকুরগাঁওয়ে নানা আয়োজন-জেলা পুলিশের ব্যাতিক্রম উদ্যোগ….» « রোম বাংলা মর্নিং সান ক্রিকেট ক্লাব ইতালীর ক্রীড়াঙ্গনে সফলতার স্বাক্ষর রাখতে চায়» « বিএনপি’র মহাসচিব মির্জা ফখরুলের মায়ের দাফন সম্পন্ন

নির্বাচনী এলাকায় চলছে অস্ত্রের ঝনঝনানি : ফখরুল

আলোরকন্ঠ রিপোর্টঃ বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘আগামী ২৮ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিতব্য কুমিল্লার লাকসামের চারটি ইউপি (ইউনিয়ন পরিষদ) নির্বাচনকে কেন্দ্র করে আওয়ামী সন্ত্রাসীদের বেপরোয়া তাণ্ডব শুরু হয়েছে। শেষ মুহূর্তের প্রচার-প্রচারণায় বিএনপি সমর্থিত প্রার্থী ও তাদের কর্মী-সমর্থকদের ওপর হামলা চালাতে দানবের ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়েছে আওয়ামী ক্যাডার বাহিনী।’

মঙ্গলবার গণমাধ্যমে প্রেরিত এক বিবৃতিতে তিনি এসব কথা বলেন।

বিবৃতিতে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘সোমবার মুদাফরগঞ্জ উত্তর ইউনিয়নের কয়েকটি এলাকায় বিএনপি সমর্থিত প্রার্থী মো. শাহ আলম ও তার কর্মী-সমর্থকদের নিয়ে গণসংযোগ করতে গেলে সম্পূর্ণ বিনা উসকানিতে সরকারদলীয় প্রার্থী শাহিনের অস্ত্রধারী ক্যাডার বাহিনী পুলিশের উপস্থিতিতে আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে হামলা চালায়। হামলায় বিএনপি সমর্থিত চেয়ারম্যান প্রার্থী শাহ আলমের ছোট ভাই খোরশেদ আলমসহ ১৫ জন আহত হন।’

‘ভাঙচুরের মাধ্যমে শাহ আলমের ব্যবহৃত গাড়িটির ব্যাপক ক্ষতিসাধন করা হয়। আহতদের মধ্যে খোরশেদ আলমের অবস্থা খুবই গুরুতর, তার ঘাড় ও মাথায় রামদা দিয়ে কোপানো হয়েছে। তিনি বর্তমানে কুমিল্লার একটি হাসপাতালে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন-’ বলে বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়েছে।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘লাকসামের চারটি ইউনিয়নে আসন্ন নির্বাচনকে কেন্দ্র করে বর্তমান শাসকগোষ্ঠী গায়ের জোরে আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থীদের বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় বিজয়ী করতে নির্বাচনী এলাকাগুলোতে আওয়ামী ক্যাডারদের লেলিয়ে দিয়েছে। নির্বাচনী এলাকাগুলোতে চলছে আওয়ামী সন্ত্রাসীদের অস্ত্রের ঝনঝনানি।’

তিনি বলেন, প্রার্থী ও সমর্থকদের ভয় পাইয়ে দিতে এবং নির্বাচন থেকে দূরে সরিয়ে রাখতেই বর্তমান শাসকগোষ্ঠী উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে অতীতের স্থানীয় নির্বাচনগুলোর মতোই লাকসামের চারটি ইউনিয়নেও এ ধরনের বর্বরোচিত, অমানবিক ও ন্যাক্কারজনক ঘটনার অবতারণা করছে। বর্তমানে দেশে সুষ্ঠু গণতান্ত্রিক পরিবেশ না থাকার কারণে মানুষ তাদের পছন্দের প্রার্থীকে নির্বাচিত করতে ভোট দেবার অধিকার থেকে বঞ্চিত হচ্ছে।’

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘আমি লাকসামের চারটি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে আওয়ামী সন্ত্রাসীদের দৌরাত্ম্য ও ন্যাক্কারজনক হামলার পুনরাবৃত্তি বন্ধে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর জরুরি হস্তক্ষেপ দাবি করছি। আওয়ামী ক্যাডারদের হামলায় হাসপাতালে মুমূর্ষু অবস্থায় চিকিৎসাধীন গুরুতর আহত খোরশেদ আলমসহ বিএনপি সমর্থিত প্রার্থীর অন্যান্য কর্মী-সমর্থকদের সুস্থতা কামনা করছি।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com