,
সংবাদ শিরোনাম :
» « ইতালির ত্রেভিজোতে উৎসব মুখোর পরিবেশে বর্ষবরণ পালিত» « স্বাস্থ্য সেবার উন্নয়নে সমাজকল্যাণ মন্ত্রনালয় কাজ করে যাচ্ছে -সমাজকল্যাণ মন্ত্রনালয়ের মন্ত্রী রাশেদ খান মেমন» « বেলজিয়ামে বর্ষ বরণ ও বৈশাখী মেলা» « প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা লন্ডন পৌঁছেছেন» « ঠাকুরগাঁওয়ে সড়ক অবরোধ/অবশেষে প্রত্যাহার» « ঠাকুরগাঁওয়ে হয়ে গেল দুই বাংলার মিলন মেলা» « ইতালীর ভেনিসে জাকজমক বাংলা নববর্ষ উদযাপিত» « বর্ষবরণে ঠাকুরগাঁওয়ে নানা আয়োজন-জেলা পুলিশের ব্যাতিক্রম উদ্যোগ….» « রোম বাংলা মর্নিং সান ক্রিকেট ক্লাব ইতালীর ক্রীড়াঙ্গনে সফলতার স্বাক্ষর রাখতে চায়» « বিএনপি’র মহাসচিব মির্জা ফখরুলের মায়ের দাফন সম্পন্ন

ইতালীর বোলজানো তে পর্যটক দের ভিড়

জাকির হোসেন সুমন , ব্যুরো চীফ ইউরোপ : পর্যটক ও স্কেটিং এর শহর হিসেবে পরিচিত ইতালীর বোলজানো । ইতালীর এ উল্লেখ যোগ্য এ শহরটি আজ হতে আরো ৮ শত বছর আগে এই শহর টির জন্ম । ইতালীর উওোর পূর্ব দিকে বোলজানো শহরের অবস্হান । বোলজানো শহরের মোট আয়োতন ৫২ হাজার ২ শত ৯০ বর্গ কিলোমিটার । ২০১১ সালের আদমশুমারি অনুযায়ী এখানকার লোক সংখ্যা ১ লক্ষ ৭ হাজার ৩ শত ৪৩ জন । এখান কার ৭৩ ভাগ মানুষ কথা বলে ইতালীয়ান , ২৬ ভাগ ডয়েচ , ১ ভাগ মানুঢ কথা বলার ভাষা লাদিনা ( আন্চলীক) । ২০১৬ সালের হিসেব অনুযায়ী বোলজানো শহরে বসবাস করছে ৪ শত ৬৬ জন বাংলাদেশী । বর্তমান হিসেবে এখন কিছু টা বেড়েছে। ১৯১৮ সালে অস্ট্রিয়া র কাছ থেকে ইতালী দখলে নেয় এ শহর টি । বোলজানো শহরের পশ্চিমে সুইজারল্যান্ড , উওরে অস্ট্রিয়া ও পূর্ব দক্ষিন এ স্লোভানিয়া অবস্থিত । এ শহরের একটি ঐতিহ্য রশেছে, ইতালীর বিভিন্ন শহরে পাথরের মুর্তি চোঁখে পরলেও এ শহরে গাছ দিয়ে ও কাঠের তৈরী মুর্তি বা ভাস্কয্য চোখে পরে। বোলজানো শহর থেকে ৪৬ কিলোমিটার পূর্ব অবস্থিত ভালগারদেনা । এই ভালগারদেনা তে প্রতি বছর জরো হয় পর্যটক সহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের স্কেটিং খেলোয়ার রা । গত বছর হয়ে গেলে এখানে ৫০ তম বিশ্বকাপ স্কেটিং প্রতিযোগীতা । ৫০ তম বিশ্বকাপ স্কেটিং উপলক্ষে মাইনাস ৭ ডি : সে : তৈরী করা হয়েছে স্কেটিং খেলোয়ার দের প্রতিকৃতি। হাজারো পর্যটক প্রতিদিন ভিড় করছেন সে সব দেখার জন্য । সম্পতি ভেনিস বাংলা স্কুলের সভাপতি সৈয়দ কামরুল সারোয়ার , সাংবাদিক জাকির হোসেন সুমন , ও তানজির হোসেন তুর্য সহ অনেক বাংলাদেশী এ স্হান টিতে বাংলাদেশী পতাকা তুলে ধরেন । নিজের চোঁখে না দেখলে বিশ্বাস করাই মুসকিল হবে ভূমি হতে ২ হাজার ৫ শ মিটার উপরে কি রয়েছে । আর তা দেখতেই মানুষ ছুটে চলে সেখানে ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com