,
সংবাদ শিরোনাম :

ঠাকুরগাঁওয়ে বন্দুকযুদ্ধে এক ডাকাত নিহত পুলিশ বলছে বন্দুকযুদ্ধ – পুলিশের সংবাদ সম্মেলন

আলোরকন্ঠ রিপোর্টঃ ঠাকুরগাঁওয়ে পুলিশের গুলিতে অজ্ঞাত পরিচয়ে এক ডাকাত নিহত হয়েছে। পুলিশ বলছে বন্ধুকযুদ্ধ। সদর উপজেলার জগনাথপুর ইউনিয়ন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে সংবাদ সম্মেলন করা হয়।
পুলিশ জানায়, সদরের জগন্নাথপুর এলাকায় একদল ডাকাত ডাকাতির চেষ্টা করে। খবর পেয়ে গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের একটি দল সেখানে অভিযান চালায়।
এ সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে একদল ডাকাত পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। এসময় পুলিশও পাল্টা গুলি চালায়। উভয়পক্ষের মধ্যে বন্দুকযুদ্ধের এক পর্যায়ে ১৪/১৫ জনের ডাকাত দল পিছু হটে। পরে ঘটনাস্থল থেকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় এক ডাকাতকে উদ্ধার করে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হলে চিকিৎসক ওই ব্যক্তিকে মৃত ঘোষণা করে। ঘটনাস্থল থেকে রামদা, ছুরি, চাইনিজ কুড়াল, বেশ কিছু সরঞ্জামাদি উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন পুলিশ।
সকাল ১১টা পুলিশ সুপার কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার ফারহাত আহম্মেদ জানান, গত ১৩ মার্চ রাতে ঠাকুরগাঁও-২ আসনের এমপি দবিরুল ইসলামের বাড়িতে ডাকতির ঘটনার জের ধরে ডিবি পুলিশের একটি দল আজ মঙ্গলবার রাতে জগন্নাথপুর এলাকায় ডাকাতদের অবস্থানের খবর পেয়ে অভিযান চালায়। এসময় কয়েকজন ডাকাত পুলিশের উপড় গুলি চালালে পুলিশ আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি চালায়। এতে একজন ডাকাত আহত হলে তাকে উদ্ধার করে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করে। অন্যদিকে চার পুলিশ আহত হয় বলে জানানো হয় সংবাদ সম্মেলনে। পরে নিহতের লাশ ময়নাতদন্ত সর্ম্পন করতে লাশ মর্গে পাঠানো হয়। এ বিষয়ে একটি মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানান পুলিশ সুপার ফারহাত আহম্মেদ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com