,
সংবাদ শিরোনাম :
» « ঠাকুরগাঁওয়ে ইউনিয়ন পরিষদের উন্মুক্ত বাজেট» « ইতালীতে ৪ বাংলাদেশীর বিরুদ্ধে ধর্ষনের অভিযোগ» « ঠাকুরগাঁওয়ে সড়ক দূর্ঘটনায় ভুমি কর্মকর্তা নিহত» « ঠাকুরগাঁওয়ে পুলিশের গুলিতে মাদক ব্যবসায়ী নিহত: দুই পুলিশ আহত» « বিরোধী দলকে দমন করতেই সরকার আইনশৃংখলা বাহিনীকে ব্যবহার করছে -বিএনপি’র মহাসচিব মির্জা ফখরুল» « অল ইউরোপিয়ান বাংলা প্রেস ক্লাবের প্যারিসে ইফতার মাহফিল» « ইতালীতে বই মেলায় বাংলাদেশী শিক্ষার্থীর কৃতিত্ব» « বাংলাদেশে পোল্যান্ড দূতাবাস স্থাপন ও পোল্যান্ড সরকারের সাথে সম্পর্ক স্থাপনে কাজ করছে বাংলাদেশ সরকার» « ঠাকুরগাঁও বিএডিসি শ্রমিকদের বিক্ষোভ ও কর্মবিরতি» « ঠাকুরগাঁওয়ে প্রযুক্তিগত শিক্ষা অর্জনের ভুমিকা সেমিনার

বেলজিয়ামে বর্ষ বরণ ও বৈশাখী মেলা

জাকির হোসেন সুমন , , ব্যুরো চীফ ইউরোপ : বাংলাদেশের সংস্কৃতিকে বিশ্ব নতুন প্রজন্মের কাছে তোলে ধরতে প্রবাসী বাংলাদেশীদের সংগঠন বেলজিয়াম-বাংলাদেশ উইমেন এ্যান্ড চাইল্ড কেয়ারে’র আয়োজনে অনুষ্ঠিত হলে গেল নববর্ষ উৎসব ও বৈশাখী মেলা ১৪২৫।
অ্যান্টওয়ারপেন নগরীতে অনুষ্ঠিত বৈশাখী আয়োজনে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, বেলজিয়ামে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মোঃ সাহাদৎ হোসেন। এছাড়াও সংগঠনের সভাপতি ও বিশিষ্ট সামাজিক ব্যক্তিত্ব শায়লা শারমিন, বেলজিয়ামের স্থানীয় জনপ্রতিনিধি পিটার মারটিন্স, ক্যারোলিন বাস্টিয়েন্স সহ স্থানীয় কমিউনিটির শীর্ষ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
এসময় রাষ্ট্রদূত মো: সাহাদৎ হোসেন আয়োজনের ভূয়সী প্রসংশা করে বলেন, অসাধারণ এই আয়োজনের মাধ্যমে বিদেশীদের কাছে বাংলাদেশকে ফুটিয়ে তোলতে পেরে, উভয় দেশের সেঁতু বন্ধন আরো দৃঢ় হয়েছে।
এছাড়াও বেলজিয়ামের স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা মনে করেন, বৈশাখী উৎসব বাংলাদেশের কৃষ্টি-সংস্কৃতি সর্ম্পকে জানানোর অন্যন্য আয়োজন। এ আয়োজনের ফলে তারা বাংলাদেশ সর্ম্পকে অনেকটাই জানাতে পেরেছে বলে মন্তব্য করেন
অ্যান্টওয়ারপেন প্রবাসীদের এ প্রয়াসে বেলজিয়াম, নেদারল্যান্ডস, জার্মানি, ইটালি ও ফ্রান্সের বিভিন্ন নগরীতে বসবাসকারী কয়েক শতাধিক বাঙালি এবং ইউরোপীয় অতিথি উপস্থিত ছিলেন।
স্থানীয় অ্যান্টওয়ারপেনের ভাই-ভাবীদের অক্লান্ত পরিশ্রমে সাজানো বৈশাখী মেলায় ঐতিহ্যবাহী বাঙ্গালি খাবার পান্তা-ইলিশ, দেশীয় পিঠা ও মুখরোচক বিভিন্ন স্বাদের ভর্তা অতিথিদের পরিবেশন করা হয়।
অনুষ্ঠানে শিমু নাহার, আয়েশা ইকবাল সরকার, আবু জাফর এবং রাজীব আহসানের উপস্থাপনায় অতিথিদের শুভেচ্ছা বক্তব্য শেষে যুক্তরাজ্য, ইটালি ও জার্মানি সহ স্থানীয় শিল্পীরা সংগীত, নৃত্য, কবিতা এবং শিশুদের অসাধারণ পরিবেশন মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।
সব ভেদাভেদ দূর করে ভ্রাতৃত্ব ও ঐক্যের বন্ধনে, বাঙ্গালির সার্বজনীন উৎসব বাংলা নববর্ষ সকলের জন্য আশীর্বাদ ও বয়ে আনুক অনাবিল সুখ-সমৃদ্ধি এবং অফুরন্ত আনন্দ, এমনই প্রত্যাশা করেন আয়োজকরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com