,
সংবাদ শিরোনাম :
» « ঠাকুরগাঁওয়ে ইউনিয়ন পরিষদের উন্মুক্ত বাজেট» « ইতালীতে ৪ বাংলাদেশীর বিরুদ্ধে ধর্ষনের অভিযোগ» « ঠাকুরগাঁওয়ে সড়ক দূর্ঘটনায় ভুমি কর্মকর্তা নিহত» « ঠাকুরগাঁওয়ে পুলিশের গুলিতে মাদক ব্যবসায়ী নিহত: দুই পুলিশ আহত» « বিরোধী দলকে দমন করতেই সরকার আইনশৃংখলা বাহিনীকে ব্যবহার করছে -বিএনপি’র মহাসচিব মির্জা ফখরুল» « অল ইউরোপিয়ান বাংলা প্রেস ক্লাবের প্যারিসে ইফতার মাহফিল» « ইতালীতে বই মেলায় বাংলাদেশী শিক্ষার্থীর কৃতিত্ব» « বাংলাদেশে পোল্যান্ড দূতাবাস স্থাপন ও পোল্যান্ড সরকারের সাথে সম্পর্ক স্থাপনে কাজ করছে বাংলাদেশ সরকার» « ঠাকুরগাঁও বিএডিসি শ্রমিকদের বিক্ষোভ ও কর্মবিরতি» « ঠাকুরগাঁওয়ে প্রযুক্তিগত শিক্ষা অর্জনের ভুমিকা সেমিনার

১২ জুন সিঙ্গাপুর

আলোরকন্ঠ রিপোর্টঃ অবশেষে সিঙ্গাপুরেই দেখা হচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও উত্তর কোরিয়ার সর্বোচ্চ নেতা কিম জং-উনের। আগামী ১২ জুন এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে বলে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প এক টুইট বার্তায় নিশ্চিত করেছেন। খবর বিবিসি, সিএনএন।

ডোনাল্ড ট্রাম্প টুইট বার্তায় লিখেছেন, ‘বহুল প্রতীক্ষিত কিম জং-উন ও আমার মধ্যে বৈঠক হবে আগামী ১২ জুন, সিঙ্গাপুরে। এই বৈঠককে বিশ্বশান্তির জন্য একটি বিশেষ মুহূর্ত হিসেবে প্রতীয়মান করতে আমরা দুজনেই চেষ্টা করব।’

গত মার্চে কিমের সাথে বৈঠকে বসার অভূতপূর্ব প্রস্তাবটি গ্রহণ করে ট্রাম্প বিশ্বকে চমকিয়ে দেন। এর পূর্বে এই দুই নেতা শুধু একে অপরকে হুমকিই দিয়ে গেছেন।

উত্তর কোরিয়ায় আটক তিন মার্কিন নাগরিক যুক্তরাষ্ট্রে ফিরে আসার কয়েক ঘণ্টা পরই আসে সিঙ্গাপুরে বৈঠক অনুষ্ঠানের ঘোষণা। গত মার্চ মাসে কিম জং-উনের দেয়া বৈঠকের আমন্ত্রণ গ্রহণ করেন ট্রাম্প। ট্রাম্পের সাথে কিমের বৈঠকে বসার যাবতীয় প্রস্তুতি সম্পন্ন করতে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পের পিয়ংইয়ং সফরকালে আটকদের মুক্তির খবর আসে।

গত সপ্তাহে ট্রাম্প জানিয়েছিলেন কিম ও তার মধ্যেকার বৈঠকের তারিখ ও সময় নির্ধারণ করা হয়েছে। তবে মাইক পম্পে উত্তর কোরিয়া সফরের আগে বৈঠকের স্থান ও সময় চূড়ান্তভাবে নির্ধারণ করা হয়নি।

মার্কিন কর্মকর্তারা বৈঠকের জন্য দুই কোরিয়ার মধ্যবর্তী বেসামরিকীকৃত এলাকা (ডিমিলিটারাইজড জোন) অথবা মঙ্গোলিয়াকে বিবেচনায় নিয়েছিলেন। অবশেষে বৈঠকের জন্য সিঙ্গাপুরকেই চূড়ান্তভাবে বেছে নেয়া হলো।

সিঙ্গাপুর মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পে ও হোয়াইট হাউস প্রধান জন কেলির পছন্দের তালিকায় ছিল।

বৈঠকে মূলত উত্তর কোরিয়ার পারমাণবিক অস্ত্র নিয়েই আলোচনা হবে। এ ছাড়াও বৈঠকটির লক্ষ্য হবে ওয়াশিংটন ও পিয়ংইয়ংয়ের মধ্যে সামরিক উত্তেজনা কমিয়ে আনা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com