,
সংবাদ শিরোনাম :

ঠাকুরগাঁওয়ে ৭ শিক্ষকের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা

আলোরকন্ঠ রিপোর্টঃ ঠাকুরগাঁও থানা পুলিশ মামলা না নেয়ায় আদালতে মামলা করলেন মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রী। বৃহস্পতিবার ঠাকুরগাঁও চীফ জুডিশিয়াল মেজিস্ট্রেট আমলী আদালত-১ এ রাশিদা বেগম বাদী হয়ে ৭ জনকে আসামী করে এ বিষয়ে একটি মামলা করেছেন। সভাপতিসহ ৬ শিক্ষক এই মামলার আসামী।
মামলার অভিযোগে জানা যায়, মামলার ১নং আসামী সাবেক শিক্ষক গোলাম মোস্তফা নির্বাচিত না হয়ে অবৈধভাবে শিক্ষক সমিতির সভাপতি পদ দখল করে বাকি আসামীদের সঙ্গে নিয়ে একটি চক্র সৃষ্টি করেছেন। এই চক্রটি শিক্ষকদের নামে মিথ্যা, বানোয়াট অভিযোগ তুলে মোটা অঙ্কের চাদাঁ আদায় করে আসছেন দীর্ঘ দিন ধরে। রাশিদা বেগমের একমাত্র ছেলে রাহাত ঠাকুরগাঁওয়ের একটি সরকারী প্রাঃ বিদ্যালয়ে প্রায় ৫ বছর ধরে সহকারী শিক্ষক পদে চাকুরী করে আসছে। বিভিন্ন সময়ে ছেলে রাহাতের কাছে চাদাঁ দাবি করে আসছে চক্রটি। গত ১ সেপ্টেম্বর আসামীরা কৌশলে শহরের সমবায় মার্কেটে ছেলেকে ডেকে পুনরায় চাঁদার টাকা দাবী করে। টাকা পেতে ব্যার্থ হলে আসামীরা ওই দিন সন্ধ্যায় উপজেলা মসজিদ মার্কেটে রাশিদা বেগমের একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে গিয়ে রাহাতকে খোঁজা খোঁজি করে। পরে তাকে না পেয়ে তার মা রাশিদাকে লাঞ্চিত করে ও দোকানে ভাংচুর চালায়।
এ ঘটনার পর থানায় মামলা করতে গেলে থানা পুলিশ মামলা নিতে অপারগতা প্রকাশ করলে শহরের হাজীপাড়ার বাসিন্দা মুক্তিযোদ্ধা মৃতঃ সিদ্দিকুর রহমানের স্ত্রী রাশিদা বেগম বাদি হয়ে আদালতে মামলাটি দায়ের করেন। মামলার অন্যান্য আসামীরা হলেন, শিক্ষক রফিকুর রহমান, মিজানুর রহমান মিন্টু, ইয়াসিন আলী, জুলফিকার, আজাহার আলী, মোহাম্মদ উল্লাহ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com